Nid ছাড়া পাসপোর্ট – আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট করার নিয়ম

আপনি যদি পাসপোর্ট তৈরি করতে চান, তাহলে পাসপোর্ট তৈরি করার জন্য বাধ্যতামূলক আপনাকে কিছু ডকুমেন্ট নিজের আয়ত্তে রাখতে হবে কিংবা নির্ধারিত কিছু ডকুমেন্ট এর সমন্বয়ে আপনি পাসপোর্ট তৈরি করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে অন্যতম একটি প্রশ্ন হল এন আইডি কার্ড ছাড়া কি পাসপোর্ট তৈরি করা যাবে কিংবা nid ছাড়া পাসপোর্ট করা কি সম্ভব?

আপনি যদি অনলাইনে মাধ্যমে পাসপোর্ট আবেদন করেন কিংবা পাসপোর্ট অফিসে যাওয়ার মাধ্যমে পাসপোর্ট আবেদন করেন সেক্ষেত্রে পাসপোর্ট আবেদন করার ক্ষেত্রে এনআইডি ছাড়া কি সেই কাজটি সম্পন্ন করা যাবে?

nid ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করার নিয়ম থাকলে সেটি আসলে কি কিংবা এন আইডি ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করা সংক্রান্ত যে সমস্ত বিষয়াদি রয়েছে, প্রত্যেকটি বিষয়ে এই আর্টিকেল থেকে সংগ্রহ করতে পারবেন।

nid ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করা কি যাবে?

যদি আপনার প্রশ্ন থেকে থাকেন আইডি ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করা যাবে কিনা? তাহলে সঠিক উত্তর হল: “হ্যাঁ“। এনআইডি ছাড়া আপনি চাইলে পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন। অর্থাৎ আপনি যদি আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করতে তাহলে সেই কাজটি সম্পন্ন করতে পারবেন।

তবে এখানে আরেকটি বিষয় বলে রাখা ভালো আর সেটি হল, বাংলাদেশে থাকা প্রত্যেক বয়সের ব্যক্তিবর্গ চাইলে আইডি কার্ড ছাড়া কিংবা ভোটার আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন না। সে ক্ষেত্রে কারা সেই সমস্ত ব্যক্তিবর্গ? যে সমস্ত নির্দিষ্ট ব্যক্তিবর্গ রয়েছেন যারা চাইলে পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন।

এনইডি ছাড়া পাসপোর্ট করা তৈরি করতে পারবেন?

যে সমস্ত ব্যক্তিবর্গরা কোন রকম এন আইডি কার্ড ছাড়া সফলভাবে একটি পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন সে সমস্ত ব্যক্তিবর্গের যে সমস্ত গুনাগুন রয়েছে, সে সমস্ত বিষয় লিস্ট নিচে তুলে ধরা হলো:

  • এক্ষেত্রে যে ব্যক্তি পাসপোর্ট আবেদন করবেন সেই পাসপোর্ট আবেদনকারীর বয়স অবশ্যই ১৮ বছরের নিচে হতে হবে।
  • আবেদনকারীর বয়স যদি ১৮ থেকে ১৯ বছর হয়ে থাকে তাহলে সেই ব্যক্তি ও চাইলে ভোটার আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন। তবে সেক্ষেত্রে শর্ত হিসেবে, ভোটার হওয়ার জন্য আবেদনকারীকে নির্বাচন অফিস থেকে ছবি তুলে আসতে হবে এবং এর সাথে ভোটার স্লিপ নাম্বারের কাগজ থাকতে হবে।
  • যে ব্যক্তি পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করবেন সেই ব্যক্তি যদি প্রবাসী বাংলাদেশী হয়ে থাকেন, এবং সে ক্ষেত্রে তার যদি আইডি কার্ড না থেকে থাকে, তাহলে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ দেয়ার মাধ্যমে পাসপোর্ট আবেদন করার কাজ সম্পন্ন করা যাবে।

উপরে যে সমস্ত ব্যক্তিবর্গের কথা মেনশন করা হয়েছে সে সমস্ত ব্যক্তিবর্গরা চাইলে কোন রকমের আইডি কার্ডের সহায়তা ছাড়া পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে পারবেন এবং সফলভাবে পাসপোর্ট তৈরি করতে পারবেন।

Nid ছাড়া পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে?

এবার খুব সাধারণভাবে আপনি যদি Nid ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করার কাজ সম্পন্ন করে নিতে চান, তাহলে সে ক্ষেত্রে Nid ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করার ক্ষেত্রে কি কি রকমের ডকুমেন্টস এর প্রয়োজন হতে পারে?

ভোটার আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করার জন্য যে সমস্ত ডকুমেন্ট এর প্রয়োজন হবে সেগুলো নিচে তুলে ধরা হলো:

  • ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন (BRC)
  • সর্ব প্রথম তথ্য হিসেবে যে তথ্যটি বাধ্যতামূলক প্রয়োজন হবে সেটি হলো, ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ।
  • যেহেতু আপনি পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করছেন সে জন্য আপনাকে পাসপোর্ট এর আবেদনের প্রিন্ট কপি সংগ্রহ করতে হবে।
  • নাগরিকত্ব সনদ সংগ্রহ করতে হবে।
  • পিতা এবং মাতা উভয়ের আইডি কার্ড লাগবে।
  • পেশা প্রমাণের জন্য সনদের প্রয়োজন হবে।
  • যখন আপনি পাসপোর্ট আবেদন সফলভাবে সম্পন্ন করে নিবেন এবং এই পাসপোর্ট এর পেমেন্ট সকলভাবে সম্পন্ন করে নিবেন তারপরে আপনাকে অবশ্যই টাকা জমা দেয়ার রশিদ দিতে হবে।
  • যদি পূর্বে থেকে আপনার কোন এমআরপি পাসপোর্ট থেকে থাকে তাহলে এই এমআর পি পাসপোর্ট এর প্রয়োজন হবে।

যদি আপনার কাছে উপরে উল্লেখিত তথ্য থেকে থাকে তাহলে আপনি সহায়তায় পাসপোর্ট আবেদন করার কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন কিংবা পাসপোর্ট আবেদন করতে পারবেন৷

প্রবাসীদের জন্য আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করতে কি কি লাগবে?

এবার আপনি যদি একজন প্রবাসী হয়ে থাকেন এবং আপনার যদি ভোটার আইডি কার্ড না দেখে থাকে তাহলে একজন প্রবাসী হিসেবে ভোটার আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করতে কি কি ডকুমেন্ট বা তত্ত্বের প্রয়োজন হবে? সেটি নিচে থেকে সংগ্রহ করে নিন।

  • ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদের প্রয়োজন হবে।
  • আপনার যে পূর্বের এমআরপি পাসপোর্ট রয়েছে সেই এমআরপি পাসপোর্ট এর ১ম পৃষ্ঠা থেকে ৭ম পৃষ্ঠা পর্যন্ত ফটো কপি এর প্রয়োজন হবে।
  • এমআরপি ই পাসপোর্ট আবেদনের প্রিন্ট কপি।
  • ভিসার কপি এর প্রয়োজন হবে।
  • পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি ছবি এর প্রয়োজন হবে।
  • পাসপোর্ট প্রসেসিং ফি এর প্রয়োজন হবে।
  • যদি কোন কারণে আপনার পূর্বের পাসপোর্ট হারিয়ে যায় সে ক্ষেত্রে জিডি কপি এর প্রয়োজন হবে।

এবং এই সমস্ত তথ্য যদি আপনার সাথে থেকে থাকে তাহলে আপনি চাইলে বিদেশে থেকে কোন রকমের আইডি কার্ডের সহায়তা ছাড়া পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

ঘরে বসে পাসপোর্ট আবেদন করার নিয়ম

এবার আপনি যদি এই সমস্ত তথ্যের সহায়তা ঘরে বসে পাসপোর্ট আবেদন করে নিতে চান কিংবা ঘরে বসে পাসপোর্ট আবেদন করার নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিতে চান, তাহলে সেই সংক্রান্ত তথ্য নিচে থেকে সংগ্রহ করে নিতে পারেন।

জেনে নিন: ঘরে বসে পাসপোর্ট আবেদন করার নিয়ম

উপরে উল্লেখিত লিংকে ভিজিট করার মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে পাসপোর্ট আবেদন করার নিয়ম সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য জেনে নিতে পারবেন।

ভোটার আইডি কার্ড ছাড়া পাসপোর্ট তৈরি করা যাবে কিনা সেই সংক্রান্ত যে তথ্যটি আপনাকে জানিয়ে দেয়া উচিত ছিল, সেই সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য উপরে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

Leave a Comment

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

ten + 6 =

Scroll to Top